মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২ ||

তথাগত অনলাইন |বুড্ডিস্ট নিউজ পোর্টাল

প্রকাশের সময়:
মঙ্গলবার ৭ মার্চ ২০২০, ,৭ টা

108

হেমেন্দুবিকাশ চৌধুরী

তথাগত: অন্য চোখে

প্রকাশের সময়: মঙ্গলবার ৭ মার্চ ২০২০, ,৭ টা

108

হেমেন্দুবিকাশ চৌধুরী

তথাগত: অন্য চোখে

তুমি এই পৃথিবীর মানুষের জীবন্ত প্রতীক তবু কত বিতর্কের বেড়াজাল নিয়ে ঘিরেছি তোমায়, ঢেকেছি ধর্মের আবরণে। আমাদের চোখে তুমি তথাগত বুদ্ধ চীবর পরা শাস্ত সৌম্য এক মহাভিক্ষু নতুন পথের এক স্রষ্টা সুমহান। হে মহাপ্রাণ, তুমি কি চেয়েছিলে এমন একা আবছায়া সাজ!গড়ে তোলা স্বর্গ ব্যবধান তোমার আর আমাদের মাঝে আমি জানি— তুমি তা চাওনি কোনো দিন। তুমি দেখতে চাওনি ধর্মের নামে অলৌকিক খেলা! মোহের আবেশে বাঁধতে চাওনি দুর্বল মন তুমি স্পষ্ট করে বলেছিলে— আছে দুঃখ, আছে জরা, আছে মৃত্যু জগতের সেই তো নিয়ম। তাই তুমি বিপন্নের শত অনুনয়ে মৃতকে দাওনি জীবন, অসুস্থকে সুস্থ করে দেখাওনি বৈদ্যিক প্রতিভা গরীবের শূন্য ঘর ভরে দাওনি ধনে দৌলতে। তুমি চেয়েছিলে ভিতরে বাইরে মানুষ স্পষ্ট করে জানুক নিজেকে গ্রহণ করুক জীবনের রুঢ় বাস্তব। পায়ে পথে বাধা ঠেলা চলতে শিখুক সুকঠিন এ মাটির পথে। রাজার বৈভব ছেড়ে ভিক্ষা-পাত্র হাতে এ সংসারে তুমিই প্রথম দেখিয়েছ ত্যাগের মহিমা।তুমি চেয়েছিলে এক আদর্শ দেশ যেখানে সবাই হবে রাজা। না, এ তোমার অলীক কল্পনা নয় এই সত্য, এই তো ঘটনা হ্যাঁ, আমরা তা পারি আমরা সবাই রাজা হতে পারি সম্পদ বৈভবে নয়, মনের ঐশ্বর্যে। মহামারী দুর্ভিক্ষের কালে তাই কোনো শ্রেষ্ঠী নয়- তোমার আহ্বানেসাড়া দেয় ভিক্ষুণী অন্ন দিতে নিরন্নের মুখে তোমারি দীক্ষা-দীপ্ত ভিক্ষু আনন্দ নির্দ্বিধায় করে পান চণ্ডালিনীর জল। পতিতা আম্রপালি তোমারই ছোঁয়ায় পায় মানবীর মান। সব মানুষের আগে বুঝেছিলে তুমি এ জগতে সবাই সমান এর চেয়ে বড় সাম্যবাদ আর কোথাও ভাবেনি তো কেউ এর চেয়ে বড় বিপ্লব আর কোথাও ঘটেনি কখনো।হে বিপ্লবী বুদ্ধ তোমার মতন আমরা পারিনি সব দুঃখ সহ্য করে সর্বস্ব বিলিয়ে দিতে সকলের তরে। তোমায় রেখেছি তাই পাথরের মূর্তি গড়ে, বন্দি করে মন্দিরের নিরন্ধ্র নির্জনে। শুধু মাঝে মাঝে বিশেষ দিনে ফুল চড়াই তোমার মূর্তিতে, ধূপ জ্বালাই, বাতিও মানি না পঞ্চশীল। চলি না অষ্টমার্গে।তোমার অস্তিত্ব আজ বিপন্ন আমাদেরই হাতে।